মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ০১:১৬ অপরাহ্ন

জরুরী নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি:
কুষ্টিয়া পোস্ট ডট কমের জন্য সারা দেশে জরুরী ভিত্তিতে বিভাগীয় প্রধান, জেলা, উপজেলা ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা career@kushtiapost.com ইমেইল এ সিভি পাঠাতে পারেন।

চুয়াডাঙ্গায় জমে উঠেছে হলিডে মার্কেট

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধিঃ

চুয়াডাঙ্গায় জমে উঠেছে হলিডে মার্কেট। সাপ্তাহিক ছুটির দিন শুক্রবার বসে এ মার্কেট। শহরের বড়বাজার ও শহীদ হাসান চত্বর এলাকায় সড়কের দু পাশের ফুটপাতে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত চলে হলিডে মার্কেটের বেচাকেনা।

জানা গেছে, সাপ্তাহিক ছুটির দিনে শহরের অন্যান্য বিপণী বিতান ও শপিংমল বন্ধ থাকায় সড়কের পাশে বসে একদিনের জন্য এসব দোকানপাট। শুধুমাত্র ছুটির দিনে ফুটপাতে এমন দোকান গড়ে ওঠায় তা হলিডে মার্কেট নামে পরিচিতি পেয়েছে।

শুক্রবার সরেজমিনে দেখা গেছে, সড়কের পাশের ফুটপাতের জায়গাজুড়ে ব্যবসায়ীরা বসিয়েছেন বাহারি রংবেরংয়ের পোশাকের দোকান। শুধু কাপড়ই নয়, এখানে বিক্রি হয় জুতা ও প্রসাধনীও। নিন্মবিত্ত থেকে উচ্চমধ্যবিত্ত সবাই একবার হলেও ঢু মারে এ মার্কেটে।

সকাল থেকে রাত পর্যন্ত ক্রেতা সমাগম ছিলো চোখে পড়ার মতো। ব্যবসায়িরা বিভিন্ন দামের অংক ধরে ছন্দে ছন্দে ডাকে ক্রেতাদের। আর সেই ছন্দের টানে ক্রেতাও বাড়তে থাকে। পোশাকের দামটাও ক্রেতাদের নাগালের মধ্যে থাকে।

হলিডে মার্কেটে পাওয়া যায়, মেয়েদের বাহারি ধরনের বোরকা, সালোয়ার কামিজ, স্যান্ডেল জুতা, আর শিশুদের থাকে বাহারি জামা কাপড়। মেয়েদের পণ্যের পাশাপাশি এই দোকানগুলোতে পাওয়া যায় ছেলেদের প্যান্ট, জামা, স্যান্ডেল জুতাসহ নানা প্রসাধনী।

এছাড়া এখানে পাওয়া যায় পুরনো গরম কাপড়ের পোশাক। যেখানে সকল শ্রেণির পেশার মানুষ এই পোশাক ক্রয় করে। একদিকে এসকল ক্রেতাদের খরচের মাত্রাটাও কমে। অপরদিকে শীতে স্বস্তি পায় নিম্ন আয়ের মানুষেরা।

এ মার্কেটের ব্যবসায়ীরা জানান, প্রতি শুক্রবার চুয়াডাঙ্গার সব শপিংমলগুলো বন্ধ থাকে। আর তাই এই দিনে আমরা কাপড় ব্যাবসায়িরা সবাই উদ্যোগ নিয়ে এই নানা ধরনের বাহারি পোশাক সাজিয়ে বিক্রি করি। এতে পোশাক ভালোই বিক্রি হয়।

তারা বলেন, উচ্চবিত্তরা বড় বড় শপিংমল থেকে পোশাক ক্রয় করে। কিন্তু যারা নিম্নবিত্ত তারা তো আর পারে না। সেই শ্রেণি পেশার মানুষের পাশাপাশি সবার জন্য এই হলিডে শপিংমল। যেখানে কম দামে পাওয়া যায় সেরা মানের পোশাক।

ব্যবসায়ীরা আরও বলেন, এসব দোকানে বেচাকেনার পরিমাণ প্রতিদিন প্রায় ৪০ থেকে ৫০ হাজার টাকা। সরকারে পক্ষ থেকে যদি কোনো সহযোগিতা করা হয় তাহলে এই ফুটপাতের দোকানগুলো আরও ভালো মানের হবে।

এ মার্কেটে পণ্য কিনতে আসা আল আমীন হোসেন বলেন, অন্য মার্কেটের তুলনায় এখানকার পোশাকের দাম অনেক কম। তাই অপেক্ষায় থাকি কবে আসবে শুক্রবার আর কবে কিনবো নতুন পোশাক। এই বাজারে কম দামের এই পোশাক পেয়ে আমরা খুশি।

জনি নামের আরেক ক্রেতা বলেন, নতুন শীতের কাপড় কিনতে গেলে হাজার হাজার টাকা লাগবে। সেখানে এই মার্কেটে ৫০০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে গরম পোশাক। এই সব কিছুই পাওয়া যায় কম দামে। এতে করে আমাদের মতো নিন্মমধ্যবিত্তরা পোশাক কিনে স্বস্তিবোধ করি।

সচেতন মহল বলছেন, হলিডে মার্কেট নামের এই দোকানগুলোতে তুলনামূলক কম দামে ভালো মানের পোশাক পাওয়া যায়। তবে এসব দোকানের কারণে যেন পথচারীদের চলাচলে বিঘ্ন না ঘটে সেজন্য ব্যবসায়ীদের সতর্ক থাকতে হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Crafted with by Softhab Inc © 2021
error: আমাদের এই সাইটের লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা যাবে না।