বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:৫৭ অপরাহ্ন

জরুরী নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি:
কুষ্টিয়া পোস্ট ডট কমের জন্য সারা দেশে জরুরী ভিত্তিতে বিভাগীয় প্রধান, জেলা, উপজেলা ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা career@kushtiapost.com ইমেইল এ সিভি পাঠাতে পারেন।
সংবাদ শিরোনাম :
রোনালদোর গোলে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে আল নাসর টিপু-প্রীতি হত্যা মামলায় অভিযোগ গঠন শুনানি পিছাল জাহাঙ্গীরনগর ইউনিভার্সিটি ডিবেট অর্গানাইজেশনের নবীনবরণ ও বিতর্ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হলিউডে অভিষেক হচ্ছে ওবামাকন্যা মালিয়া পঞ্চগড়ে মানসিক ভারসাম্যহীন নারীর মরদেহ উদ্ধার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ: রাতে মাঠে নামছে রেনে-এসি মিলান প্রধানমন্ত্রীকে ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্টের অভিনন্দন রাজবাড়ীতে ওয়াজ মাহফিলে যাওয়ার পথে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা পাবনায় অটোরিকশা-প্রাইভেটকারের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ৫ এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের অবসরভাতা দিতে সময় বেঁধে দিল হাইকোর্ট

নড়াইলে জমি নিয়ে বিরোধ, প্রতিপক্ষ গুড়িয়ে দিল ৩ বাড়ি

জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে নড়াইল সদরের তারাপুরে একটি পরিবারের ৩ বাড়ি ভাংচুরের অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে। একই সাথে চালিয়েছে লুটপাট।

শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় পুলিশের জরুরি সেবায় ফোন করেও কোন প্রতিকার পায়নি জানিয়েছে ভুক্তভোগী পরিবার।

শনিবার (১০ফেব্রুয়ারি) সরেজমিন ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, তারাপুর গ্রামের নয়ন শেখের পরিবারের সাথে একই গ্রামের জুবায়ের শেখ পরিবারের জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলছিল। ৪ ফেব্রুয়ারি প্রতিপক্ষ জুবায়ের শেখকে পিটিয়ে আহত করে নয়ন শেখের পক্ষীয় জুরাইল শেখের লোকজন। জুবায়ের শেখ আহত হয়ে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়।

এঘটনার জের ধরে জুবায়ের শেখ পক্ষীয় আসাদ শেখের নেতৃত্বে ৯ ফেব্রুয়ারি রাতে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে নয়ন শেখের বাড়িতে হামলা চালায়। ঘরে অবস্থানকারী নয়ন শেখের বাবা ও মাকে তাড়িয়ে দিয়ে রাত ১২ টা থেকে ৩ ঘণ্টা ধরে ভাঙচুর চালিয়ে দুটি টিনশেড ঘর ভাঙচুর করে। অপর নির্মাণাধীন বাড়ির ছাদ ভেঙ্গে ফেলে ও লুটপাট করে ।

ঘটনার সময় নয়ন শেখের ৪ ভাই এলাকার বাইরে থাকায় থানায় অভিযোগ করতে পারেনি।

নয়ন শেখ বলেন, ‘তারা ৩ ঘণ্টা ধরে আমাদের বাড়িঘর ভাঙচুর করছিল, আমি খুলনার দৌলতপুর থেকে পুলিশের ৯৯৯ এ ফোন করলে তারা আমাকে মির্জাপুর ফাঁড়িতে যোগাযোগ করতে বলে। আমি ফাঁড়িতে যোগাযোগ করতে না পারায় আমার ঘরগুলো ভেঙ্গে গুড়িয়ে দিয়েছে।

এদিকে ভাংচুরের নেতৃত্বে থাকা অভিযুক্ত আসাদ শেখের বাড়িতে গেলে তাকে পাওয়া যায়নি। তার স্ত্রী রত্না বেগম বলেন, রাতে কারা ঘর ভেঙ্গেছে তা আমরা জানি না। জমি নিয়ে বিরোধ জুবায়ের এর সাথে আমার স্বামী এ ঘটনায় জড়িত নয়।

নড়াইল সদর থানার ওসি মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বলেন, মারামারির ঘটনাটি আমাদের নজরে আছে। সেটার অভিযোগ পাওয়া গেছে, তবে বাড়ি ভাংচুরের কোন অভিযোগ আসেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Crafted with by Softhab Inc © 2021
error: আমাদের এই সাইটের লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা যাবে না।