মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ১১:৩৯ পূর্বাহ্ন

জরুরী নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি:
কুষ্টিয়া পোস্ট ডট কমের জন্য সারা দেশে জরুরী ভিত্তিতে বিভাগীয় প্রধান, জেলা, উপজেলা ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। আগ্রহীরা career@kushtiapost.com ইমেইল এ সিভি পাঠাতে পারেন।

আমু ভাই আমাকে বিএনপিতে পাঠিয়েছিলেন: শাহজাহান ওমর

বরিশাল প্রতিনিধি

ঝালকাঠী-১ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর জানিয়েছেন, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য আমির হোসেন আমু তাকে বিএনপিতে পাঠিয়েছিলেন, আবার তিনিই তাকে আওয়ামী লীগে ফিরিয়ে এনেছেন।

২০ ডিসেম্বর, বুধবার রাতে বরিশাল নগরীর কবি জীবনানন্দ দাশ সড়কে ১৪ দলের মুখপাত্র আমির হোসেন আমুর বাসভবনে রাজাপুর ও কাঁঠালিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি।

ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর বীর উত্তম বলেছেন, ‘বিপদের সময় আব্দুর রব সেরনিয়াবাত, আমির হোসেন আমু ও আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ আমার জন্য লাফিয়ে পড়েছিল। যার জন্য আমি টিকে আছি, তা না হলে আমার অনেক আগেই জেল হতো।

আমির হোসেন আমুকে দেখিয়ে শাহজাহান ওমর বলেন, ১৯৯০ সালে আমার এই নেতা আমাকে নিয়ে শেখ হাসিনার কাছে গিয়েছিলেন, তখন নেত্রী মুচকি হেসে বললেন, ‘এক প্রার্থী এসেছে যে আমার বাবার বাল্যবন্ধু মরহুম কুদ্দুস সাহেব। তাকে তো ওয়াদা করেছি।’ তখন আমি বললাম, আমু ভাই আমি কী করব? তখন ভাই বললেন, ‘যেখানে আছ, সেখানেই থাকো।’ এই আমু ভাই আমাকে আবার বিএনপিতে পাঠায়, দোষ কিন্তু আমার না।

তিনি বলেন, নুরুল ইসলাম মঞ্জু ১৯৭৪ সালে আমাকে কেসে ঢুকিয়ে দিয়ে বঙ্গবন্ধুকে ভুল বুঝিয়ে আমার চাকরি ডিসমিস করেছিল, আমি তখন খুব বিপদগ্রস্ত। জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় আসার পর আমাকে তার দল করতে বললেন। তখন আওয়ামী লীগ সুসংগঠিত ছিল না।

আমি বিএনপিতে ২৯ তারিখ পর্যন্ত ছিলাম। ৩০ তারিখ সকাল সাড়ে ১০টার দিকে আমার বাসায় ফোন আসে প্রধানমন্ত্রী আমার সঙ্গে দেখা করতে চান। যাওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী আমাকে তার দল করতে বললেন। আমি বললাম, করতে পারি এক শর্তে, ১৫ আগস্ট আপনার তিন ভাই শহীদ হয়েছেন। আপনি যদি আমাকে চতুর্থ ভাই হিসেবে গ্রহণ করেন তাহলে। এর পর বললেন দস্তখত করতে, দস্তখত করলাম, আওয়ামী লীগে যোগ দিলাম।

নিজেকে আওয়ামী লীগের সর্বকনিষ্ঠ দাবি করে তিনি বলেন, আমার আগের যা দলবল ছিল, সব নিয়ে আওয়ামী লীগে যোগদান করেছি। রাজাপুরে গুটিকয়েক নাবালক ছেলে আছে, ওরাও এসে যাবে এটা কোনো বিষয় না।

পরবর্তী সময় তিনি আবার দল পরিবর্তন করবেন কি না সে প্রশ্নের উত্তরে ওমর বলেন, ‘তওবা আস্তাগফিরুল্লাহ। আই অ্যাম আ ফ্রিডম ফাইটার, আই ফট ফর দিস কান্ট্রি।

গুরু (আমু) তো বলল আমি জয় বাংলার লোক, কতবার বলব। ৬৪ থেকে তার সঙ্গে আজ পর্যন্ত আছি। আমার বিপদের সময় তারা সাহায্য করেছে, তারা যখন বিপদে পড়েছে তখন আমার লিমিটেড সোর্সে চেষ্টা করেছি প্রটেকশন দেয়ার জন্য।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।
Crafted with by Softhab Inc © 2021
error: আমাদের এই সাইটের লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা যাবে না।